-->

লাইফ হ্যাক(জুতার ব্যবহার)-Best-simpel-real life life hack tips-for your Shoes

জুতার যত্ন নেওয়ার সঠিক উপায় -Life hacks for home

লাইফ হ্যাক(জুতার ব্যবহার)-Best-simpel-real life life hack tips for your Shoes
Best-simpel-real life life hack tips for your Shoes

হ্যালো বন্ধুরা কেমন আছে সবাই আজ আমি আরো একটি দারুন টিপস নিয়ে হাজির হয়েছি। আজকে আমি দেখাবো কি ভাবে চামড়ার জুতার যত্ন নিবেন এবং আপনার চামড়ার পুরানো জুতা কে নতুননের মতো চকচকে করে তুলবেন। এজন্য আপনাকে জুতা চকচকে রাখার কিছু সামগ্রিক সংরক্ষণ করে রাখতে হবে।

{tocify} $title={Table of Contents}

উপকরন সূমহ

জুতার যত্নে প্রয়োজনীয় উপকরন গুলো হচ্ছে ক্লিনিং ব্রাশ এটা নরম হতে হবে সিনথেটিক বা প্রানীর গায়ের পশসের তৈরী।পালিশ করার ব্রাশ এটা ঘোড়ার গায়ের পশমের হলে ভালো হয়।

আপনি যে রং করবেন সে রং এর জন্য আলাদা আলাদা ব্রাশ ব্যবহার করবেন অন্যথায় একটার রং অন্যটার সাথে মিশে যাবে এবং  আপনার রং খারাপ হয়ে যাবে।

টেকিং ব্রাশ ব্যবহার করবেন বা আপনি নরম কাপড় ও ব্যবহার করতে পারেন তবে অবশ্যই খেলার রাখবেন এক রং যাতে অন্য রং এর সাথে মিশে যায় এ ব্যাপাটি গুরুত্ব সহকারে দেখতে হবে।

জুতা পালিশের সঠিক নিয়ম

জুতা পালিশের জন্য আপনার কিছুটা ধৈর্য থাকা জরুরি। জুতা পরিষ্কারের ব্রাশটি ধুলোবালি থেকে দুরে রাখতে হবে। ব্রাশ গুলোতে ময়লা জমতে দেয়া যাবে না। দরকারে নিয়মি ব্রাশ পরিষ্কার করুন আর ভালো হয় ধুলাবালি যখানে না পৌছায় সে জায়গায় রাখা। না হলে আপনার জুতা পরিষ্কারের ক্ষেত্রে ভালো ফল পাবেন না। আর এর সাথে ব্যবহৃত করতে পারেন গ্রিস,ওয়াক্স,ময়সচার।

জুতার মান ভালো রাখতে এটি নিয়মিত পরিষ্কার করুন। এতে জুতার উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পাবে। পরিষ্কার জন্য একটি ব্রাশ দিয়ে ভালো করে মুছে নিবেন। তারপর শু ক্রিম লাগিয়ে রাখতে হবে। তবে মনে রাখতে হবে যতোটা জুতাতে প্রয়োজন বা জুতা নিজে টেনে নিয়ে শুকিয়ে যাবে ততোটা ব্যবহার করতে হবে।

এজন্য আপনি লেয়ার ক্রিম লাগাতে পারেন। ক্রিম লাগানোর পর কিছু সময় অপেক্ষা করতে হবে ক্রিম টা শুকানোর জন্য। তার দ্বিতীয় ধাপে আরেক বার লগাতে হবে এবং তা শুকিয়ে নিতে হবে। এরপর তা পালিশ করে নিতে পারেন এজন্য বাজারে শু পালিশার পাওয়া যায় সেটা ব্যবহার করতে পারেন।

জুতা সংরক্ষণের পদ্ধতি

জুতা কিনার পর সেটি বাড়িতে এনে এলোমেলো ভাবে রাখবেন না। এতে জুতার মান নষ্ট হয় তাড়াতাড়ি। যদি পারেন তাহলে কিছু দিন পরপর শু টি ব্যবহার করবেন এতে আপনার শুটি ভ্যাজ পড়া ও আকার নষ্ট হয়া থেকে রক্ষা পাবে।

কিছু দিন পর ব্যবহার করে এটি আবার পরিষ্কার করে রেখে দিবেন এতে আপনার জুতার মান ঠিক থাকবে এবং অনেক দিন টেকসই হবে ও জুতার উজ্জ্বল একই থাকবে।


জুতা ভ্যাজ পড়া থেকে রক্ষা

অনেকে জুতা ব্যবহার করেন কিন্তু একটা সমস্যা পড়েন সেটা হলো জুতার পেছনে অংশে ভ্যাজ পড়া।  এই সমস্যার সমাধানের জন্য আপনি শু হন  ব্যবহার করতে পারেন এতে আপনার জুতার পেছনেন অংশ নষ্ট হয় কম।

জুতার মেরামতে কিছু কথা

আপনার জুতার কোনো অংশ ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে থাকে তবে ওটা মেরামত না করে ব্যবহার করবেন কারন না এতে আপনার জুতা আরো তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়ে যাবে। তাই ক্ষতিগ্রস্থ হওয়া জুতাটি মেরামত করে ব্যবহার করুন তাহলে দীর্ঘ দিন চলাতে পারবেন।


Post a Comment (0)
Previous Post Next Post